1. ridowan2424@gmail.com : ridua2z :

November 27, 2020, 2:13 am

হেলথ টিপস (পার্ট -২) ত্বকের যত্নে ভিটামিন ‘ই’

হেলথ টিপস (পার্ট -২) ত্বকের যত্নে ভিটামিন ‘ই’

হেলথ টিপস এর ২য় পার্ট এ আপনাদেরকে স্বাগতম, যারা আগের পর্ব দেখেননি তাদের জন্য-> (১) হেলথ টিপস (পার্ট -১): পেটের চর্বি থেকে কিভাবে মুক্তি পাবেন তার টিপস

তো আজ দ্বিতীয় পর্বে আমরা ভিটামিন “ই” এর কিছু উপকারিতা নিয়ে কথা বলব, প্রধানত ত্বকের যত্নে ভিটামিন “ই” যত্যিই গুরুত্বপূর্ণ। ভিটামিন-ই ক্যাপসুলের মধ্যে থাকা তেল নিয়মিত মুখে লাগালে ত্বকের ভেতরের পুষ্টির ঘাটতি দূর হয়। এতে স্বাভাবিকভাবেই ত্বক ফর্সা হয়ে ওঠে।

১. মুখের দাগ দূর করতে
ভিটামিন-ই হলো এক ধরনের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা ত্বকের কোষের ক্ষত সারানোর মধ্যে দিয়ে যেকোনো দাগকে দূর করতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

এ ক্ষেত্রে একটি ভিটামিন-ই ক্যাপসুল এর ভেতরে থাকা তরল সংগ্রহ করুন। সেই তরল মুখে লাগিয়ে ৫-১০ মিনিট ভালো করে ম্যাসাজ করুন। ৩০ মিনিট পর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখটা ধুয়ে ফেলুন।

২. চুলের সৌন্দর্য বাড়াতে
স্কাল্পের ভেতরে ভিটামিন-ই এর মাত্রা বাড়াতে থাকলে হেয়ার ফলিকেলের ক্ষতি রোধ হয়। এতে চুল পড়ার মাত্রা যেমন কমে, তেমনি চুলের ভেতরে পুষ্টির ঘাটতি দূর হওয়ার কারণে চুলের সৌন্দর্য বাড়ে অসময়ে যাতে চুল পেকে না যায়, সেদিকেও খেয়াল রাখে এই ভিটামিন-ই।

৩. বলিরেখা কমায়
রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ভিটামিন ই অয়েল মুখে লাগিয়ে ভালো করে ম্যাসাজ করুন। পরের দিন ঘুম থেকে উঠে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এটি ত্বকের ভেতরে আর্দ্রতা বাড়াবে, বলিরেখা কমাবে।

৫. পুড়ে যাওয়া ত্বকের পরিচর্যায়
চার থেকে পাঁচটি ভিটামিন-ই ক্যাপসুল থেকে তরল সংগ্রহ করে তার সঙ্গে সমপরিমাণ লেবুর রস মিশিয়ে মিশ্রণ বানান। তারপর সেটি ত্বকে লাগিয়ে ভালো করে ম্যাসাজ করুন। এটি ত্বকের পোড়াভাব কমতে সাহায্য করবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2019 a2zbangla.com
Customized BY A2zbangla